DY Patil T20: আইপিএলের আগে জোরালো কামব্যাক শিখরের, শূন্যতে আউট হলেন ধারাভাষ্যকার কার্তিক

প্রতিযোগিতামূলক ক্রিকেটে দারুণ প্রত্যাবর্তন করলেন ভারতের চ্যাম্পিয়ন ব্যাটসম্যান শিখর ধাওয়ান (Shikhar Dhawan)। কিন্তু বুধবার ডি ওয়াই পাটিল ব্লু, ডিওয়াই পাতিল টি-টোয়েন্টি কাপ ২০২৪-এর (DY Patil T20 Tournament) ১৮তম মরশুমে বিপক্ষ দল টাটা স্পোর্টস ক্লাবের কাছে মাত্র ১ রানে হেরে যাওয়ায় তার মূল্যবান ইনিংসটি বৃথা গেল।

টাটা স্পোর্টস ক্লাব প্রথমে ব্যাট করে ২০ ওভারে ৯ উইকেটে ১৮৫ রান তোলে। পঞ্চম উইকেটে অপূর্ব ওয়াংখেড়ের (৮৩) সঙ্গে ৫৪ রান যোগ করেন চিন্ময় সুগার (৫১)। ডিওয়াই পাতিল ব্লুর হয়ে সেরা বোলার ছিলেন অধিনায়ক বিপুল কৃষ্ণান (৪-৪২) ও অজয় সিং (২-৩২)। লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে নীল শুরুটা ভালোই করেছিল এবং তাদের দুই ওপেনার অভিজিৎ তোমর ও শিখর ধাওয়ান (৩৯) ৭.১ ওভারে ৬৪ রান যোগ করেন। প্রচণ্ড গর্জে ওঠে ধাওয়ানের ব্যাট। এরপর নূতন গোয়েল ৩৫ বলে ৩৮ রানে অপরাজিত থাকেন এবং শুভম দুবের (৪২) সঙ্গে পঞ্চম উইকেটে মূল্যবান ৫৮ রান যোগ করেন।

শেষ পর্যন্ত ব্লু মাত্র এক রান মিস করে ২০ ওভারে ৭ উইকেটে ১৮৪ রানে শেষ হয়। ব্লু-র হয়ে খেলা ভারতের প্রাক্তন উইকেটরক্ষক দীনেশ কার্তিক (Dinesh Karthik) প্রথম বলেই শূন্য রানে আউট হলেও গ্লাভস দিয়ে সমর্থ ব্যাসের গুরুত্বপূর্ণ ক্যাচ নেন। ভারত ও ইংল্যান্ডের মধ্যে চলমান টেস্ট সিরিজেও ধারাভাষ্য দিয়েছেন দীনেশ কার্তিক। এদিকে অন্য ম্যাচে কানাড়া ব্যাঙ্ক ব্যাট করার আমন্ত্রণ জানানোর পর ব্যাঙ্ক অফ বরোদা ২০ ওভারে ৮ উইকেটে ১৫১ রান করে।

ব্যাঙ্ক অফ বরোদার হয়ে সর্বোচ্চ ব্যাটসম্যান ছিলেন রোহন কদম (৭৬)। কানাড়া ব্যাঙ্কের হয়ে সেরা বোলার ছিলেন মনোজ ভান্ডাগে (৩-৩৪)। জবাবে কানাড়া ব্যাঙ্ক তাড়া করে আউট হন এমজি নবীন (অপরাজিত ৪৭)। দুই বল বাকি থাকতেই লক্ষ্যে পৌঁছে যায় কানাড়া ব্যাঙ্ক। ব্যাট হাতে দ্বিতীয় গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখেন পল্লব কুমার দাস (৩১)। ১৯.৪ ওভারে ৮ উইকেটে ১৫২ রান তুলে জয় পায় কানাড়া ব্যাঙ্ক। ব্যাঙ্ক অফ বরোদার হয়ে সেরা বোলার ছিলেন কুশাং প্যাটেল (২-১৯) ও অধিনায়ক কে গৌতম (২-২৭)।