কনওয়ে-সান্তনারের পর এবার করোনাক্রান্ত হলেন এই অস্ট্রেলিয়ান বিশ্বকাপজয়ী তারকা

পাকিস্তানের বিপক্ষে টি টোয়েন্টি সিরিজে প্রথমে মিচেল স্যান্টনা এই ভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার পর কিউই ওপেনার ডেভন কনওয়েও কোভিড পজিটিভ হয়েছিলেন।

আবারও বিশ্ব ক্রিকেট থেকে একের পর এক কোভিড ১৯-এর খবর আসছে। সাম্প্রতিক সময় একাধিক নিউজিল্যান্ড ক্রিকেটারদের কোভিড পজিটিভ হওয়ার খবর সামনে এসেছিলো। এবার ওয়েস্ট ইন্ডিজ বনাম অস্ট্রেলিয়ার (West Indies vs Australia Series) টেস্ট সিরিজেও পড়লো করোনার থাবা। কোভিডে আক্রান্ত হলেন অস্ট্রেলিয়ার তারকা ব্যাটসম্যান।

এই মাসেই চলা পাকিস্তান বনাম নিউজিল্যান্ডের (Pakistan vs New Zealand Series) মধ্যে ৫ ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজে কোভিডের প্রকোপ দেখা যায়। প্রথমে মিচেল স্যান্টনার (Mitchell Santner) এই ভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার পর কিউই ওপেনার ডেভন কনওয়েও (Devon Conway) কভিড পজিটিভ হন। যা ক্রিকেট বিশ্বকে রীতিমতো উদ্বিগ্নের মধ্যে রেখেছিলো। এবার অস্ট্রেলিয়ার অন্যতম তারকা ব্যাটসম্যান ট্রেভিস হেড (Travis Head) চিন্তা বাড়িয়ে দিলেন।

ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে দ্বিতীয় টেস্ট ম্যাচের আগেই তার কোভিড পজিটিভ ধরা পড়েছে। তবে এই ম্যাচের আগেই ট্রেভিস হেড ব্রিসবেনে পৌঁছাবেন বলে জানা গেছে। সোমবার ব্রিসবেনে অস্ট্রেলিয়া দলের একত্রিত হওয়ার কথা ছিলো। তবে ট্রেভিস হেডকে সেরে ওঠার জন্য সময় দেওয়া হয়েছে। তিনি বাড়িতে একটি অতিরিক্ত দিন কাটাবেন। তারপর হেডের আরও একবার কোভিড পরিক্ষা করা হবে‌। উল্লেখ্য ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে প্রথম টেস্ট ম্যাচ ৩ দিনে শেষ হওয়ার পর তিনি অসুস্থ হয়ে পড়েছিলেন।

অন্যদিকে প্রথম ম্যাচে অস্ট্রেলিয়ার হয়ে ট্রেভিস হেড দুরন্ত পারফরম্যান্স করেন। তিনি প্রথম ইনিংসে ১৩৪ বলে ১২ টি চার এবং ৩ টি ছয় মেরে ১১৯ রানের ইনিংস খেলেছিলেন। এর ফলে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে অজিরা ১০ উইকেটে দুরন্ত জয় তুলে নেয়। এছাড়াও ট্রেভিস হেড গত বছর একদিনের বিশ্বকাপেও (World Cup 2024) অসাধারণ পারফরমেন্স করেছিলেন। তিনি এই টুর্নামেন্টের ফাইনালে ভারতের (India vs Australia) বিপক্ষে ১২০ বলে ১৩৭ রানের দুর্দান্ত ইনিংস খেলে দলকে চাম্পিয়ান করতে সাহায্য করেন।