ভারতীয় দলে খারাপ পারফরম্যান্সের দায়ে সমালোচনার শিকার, কিন্তু রঞ্জিতে ফিরে পরপর দুই ম্যাচে শতরান‌ তিলকের

কিছুদিন আগেই বিরাট কোহলি ভারতীয় টি-২০ দলে ফেরার জন্য দল থেকে বাদ পড়তে হয়েছে তিলক বর্মাকে। তারপর থেকেই তিনি রঞ্জিতে যেরকম ছন্দ দেখাচ্ছেন, তাতে আবারও ভারতীয়দের মনে নতুন করে জায়গা করে নিচ্ছেন তিনি।

বর্তমানে ক্রিকেটমহলে সবচেয়ে আলোচ্য বিষয় হল হঠাৎ করে তিলক বর্মার (Tilak Varma) ভারতীয় দল থেকে বাদ পড়া। ভারতীয় টি-২০ দলে বিরাট কোহলি (Virat Kohli) আগমন হতেই দল থেকে বাদ পড়তে তরুণ প্রতিভা তিলক বর্মাকে। হ্যাঁ, তিলক বর্মা কেরিয়ারের শুরুটা ঠিক যেভাবে করেছিলেন, বর্তমানে আর সেভাবে চালিয়ে যেতে পারছিলেন না। খুবই ধীর গতিতে দলের রান এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছিলেন।

বিরাট কোহলির মতো কিংবদন্তি ক্রিকেটার দলে ফিরলে যে তিলকের জায়গা হবে না ভারতীয় দলে। এটা প্রায় বোঝাই যাচ্ছিলো। বিরাট ফিরতেই ঠিক সেটাই হয়েছে। ধরে নেওয়া হচ্ছে, তিনি ভারতীয় দলের সাথে আইসিসি টি-২০ বিশ্বকাপে (ICC T20 World Cup 2024) গেলেও প্রথম একাদশে সুযোগই পাবেন না। এদিকে তিনি বর্তমানে রঞ্জিতে (Ranji Trophy 2024) যেরকম ছন্দ দেখাচ্ছেন, তাতে আবারও ভারতীয়দের মনে জায়গা করে নিচ্ছেন তিনি।

ঘরোয়া ক্রিকেটে হায়দ্রাবাদের (Hyderabad) হয়ে খেলেন তিলক। ইতিমধ্যে রঞ্জি ট্রফি ২০২৪ এ এই নিয়ে তৃতীয় ম্যাচ খেলছে তারা। যার মধ্যে প্রথম এবং তৃতীয় এই দুই ম্যাচে হায়দ্রাবাদের হয়ে অধিনায়কত্ব করেছেন তিনি। দুটি ম্যাচেই সেঞ্চুরি করতে দেখা গেছে ভারতীয় দলের বাঁ-হাতি তারকা তিলককে। প্রথম ম্যাচে নাগাল্যান্ডের (Nagaland) বিরুদ্ধে ১১২ বলে ১০০ রানের অপরাজিত ইনিংস খেলেছিলেন তিনি। আজ ফের সিকিমের (Sikkim) বিরুদ্ধে তার দ্বিতীয় ম্যাচের প্রথম ইনিংসে ১১১ বলে ১০৩ রানের অপরাজিত ইনিংস খেলেছেন তিনি।

প্রথম ম্যাচটিতে তিলকের ১০০ রানের ইনিংসের জন্য এক ইনিংসে এবং ১৯৪ রানে জয় পেয়েছিল হায়দ্রাবাদ, এরপর ভারতীয় দলের সাথে থাকায় দ্বিতীয় ম্যাচে খেলেননি তিলক। তৃতীয় ম্যাচে ফিরে এসেই আবারও সেঞ্চুরি করেছেন তিনি৷ তিলক বুঝিয়ে দিচ্ছেন, ভারতীয় দলে তার কতটা প্রয়োজন। বিশেষ করে বাঁ-হাতি হওয়ার সুবিধার্থে মিডিল অর্ডারে বিপক্ষের সামনে ভয়ঙ্কর রুপ ধারণ করার ক্ষমতা রয়েছে তার।