তিনজন ভারতীয় প্লেয়ার যারা এই‌ বছর আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অবসর ঘোষণা করলে, ভারতীয় দলে তাদের বিদায়ী ম্যাচ দেওয়া হতে পারে

বিশ্ব ক্রিকেটে অনেক খেলোয়াড় আছেন যারা দীর্ঘদিন জাতীয় দলে সুযোগ না পেয়ে সবার আড়ালেই অবসর নিয়ে নেন। আবার অনেক ক্রিকেটারকে নির্ধারিত বিদায়ী ম্যাচের মধ্যে দিয়ে সম্মান জানানো হয়। ভারতীয় দলে শেষ সম্ভবত আশিস নেহরা (Ashish Nehra) এই রকম সুযোগ পেয়েছিলেন। অন্যদিকে এই বছর ভারতীয় দলের কিছু সফল ক্রিকেটার অবসর নিতে পারেন এবং ক্রিকেট জীবনকে স্মরনীয় করে রাখার জন্য তাদের একটি বিদায়ী ম্যাচ পাওয়া উচিত। এইরকম ৩ জন ভারতীয় ক্রিকেটারদের নিয়ে আজ আলোচনা করা হলো।

১) শিখর ধাওয়ান (Shikhar Dhawan)

ভারতের অন্যতম সফল ওপেনার শিখর ধাওয়ান এই বছর অর্থাৎ ২০২৪ সালে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে অবসর নিতে পারেন। শুভমান গিল (Shubham Gill), যশস্বী জয়সওয়ালের (Yashasvi Jaiswal) মতো তরুণ ব্যাটসম্যান দলে যোগ দেওয়ায় তিনি সাম্প্রতিক সময় জাতীয় দলে জায়গা করে নিতে পারছেন না। শিখর ধাওয়ান ২০২২ সালে বাংলাদেশের বিপক্ষে শেষ ভারতের দ্বিতীয় শ্রেনীর দলের হয়ে খেলেছিলেন। তাই শিখর ধাওয়ান এই বছর আন্তর্জাতিক ক্রিকেটকে বিদায় জানতে পারেন। ফলে একদিনের ক্রিকেটে এখনও পর্যন্ত ৬৭৯৩ রান করা এই ব্যাটসম্যানের জন্য বিসিসিআইয়ের একটি বিদায় ম্যাচ আয়োজন করা উচিত হবে।

২) ইশান্ত শর্মা (Ishant Sharma)

ইশান্ত শর্মা ভারতীয় দলের অন্যতম একজন অভিজ্ঞ পেসার। জাতীয় টেস্ট দলে তিনি নিজেকে উজাড় করে দিয়েছেন। ১০৫ টি টেস্ট ম্যাচে ইশান্ত শর্মার মোট ৩১১ টি উইকেট সংগ্রহে আছে। তবে তিনি শেষ ২০২১ সালে দেশের হয়ে মাঠে নেমেছিলেন। বর্তমানে জাসপ্রিত বুমরাহ (Jasprit Bumrah), মহম্মদ শামিরর (Mohmmed Shami) মতো গুরুত্বপূর্ণ বোলার দলে জায়গা পাওয়ায় আর ইশান্ত সুযোগ পাননি। তাই তিনি এই বছর আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে বিদায় নিতে পারেন। এই ভারতীয় পেসারও একটি বিদায়ী ম্যাচ পাওয়ার যোগ্য।

৩) দীনেশ কার্তিক (Dinesh Karthik)

দীনেশ কার্তিক বর্তমানে আইপিএলে ধারাবাহিকভাবে অংশগ্রহণ করলেও জাতীয় দলে তিনি দীর্ঘদিন ধরে জায়গা করে নিতে পারছেন না। তবে দীনেশ কার্তিক ভারতীয় দলের হয়ে একাধিক গুরুত্বপূর্ণ ইনিংস খেলেছেন। এমনকি তিনি ২০০৭ সালে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ (T20 World Cup) জয়ী দলের অংশ ছিলেন। অন্যদিকে দীনেশ কার্তিক শেষ ২০১৯ সালে দেশের হয়ে মাঠে নেমেছিলেন। এই বছর আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে তার অবসর নেওয়ার সম্ভাবনা আছে এবং দীনেশ কার্তিক একটি বিদায়ী ম্যাচ পাওয়ার অন্যতম দাবিদার।