চুরি করতে গিয়ে হাতেনাতে ধরা পড়লো ঈশান কিষান!

আসলে চুরির গল্পটি রোহিত শর্মা বহুদিন আগে করলেও, সেই ঘটনাটি সম্প্রতি খুব ভাইরাল হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছিল যখন মুম্বাইয়ের বোলিং কোচ ছিল শেন বন্ড।

তরুণ প্রতিভাবান খেলোয়াড়দের মধ্যে ঈশান কিশান অন্যতম। তবে বর্তমানে তিনি ভারতীয় ক্রিকেট দল থেকে অনেক দূরে রয়েছেন। শেষবারের মতো দক্ষিণ আফ্রিকা সফরে তার নাম থাকলেও, মানসিক অবসাদের কারণ দেখিয়ে নিজেই নিজের নাম প্রত্যাহার করে নেন। এরপর থেকে কোন ফরম্যাটেই ভারতীয় দলের অংশ হননি তিনি। পরবর্তীতে বিসিসিআই ঝাড়খণ্ডের হয়ে রঞ্জি ট্রফিতে অংশগ্রহণ করার অনুরোধ জানালেও, ঈশান কিষান BCCI এর অনুরোধ রাখেনি। বর্তমানে ঈশান কিষান রঞ্জি ট্রফি না খেলার কারণে চর্চায় রয়েছে। এর মধ্যেই তাকে নিয়ে একটি মজার গল্প সামনে এসেছে।

আসলে চুরির গল্পটি রোহিত শর্মা (Rohit Sharma) বহুদিন আগে করলেও, সেই ঘটনাটি সম্প্রতি খুব ভাইরাল হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছিল যখন মুম্বাইয়ের বোলিং কোচ ছিল শেন বন্ড। বন্ড এবং তার প্রশিক্ষক উভয় মিলে ঈশান কিষানের সঙ্গে প্রান্কটি করেছিলেন। দুজন মিলে ঈশান কিষানের ব্যাগে লাউঞ্জ এর টেলিফোন লুকিয়ে ঢুকিয়ে দিয়েছিল। যাতে সেই টেলিফোন নিরাপত্তা রক্ষির চোখে আসে। তাদের প্লান মত নিরাপত্তারক্ষী ঈশান কৃষানের ব্যাগে টেলিফোন খুঁজে পায়।

রোহিত শর্মা বলেছিলেন, “নিরাপত্তা রক্ষী ঈশানকে থামিয়ে জিজ্ঞাসা করেছিলেন, আপনি এখানকার ফোন কোথায় নিয়ে যাচ্ছেন। আপনি কি ফোনটা চুরি করছেন? সেখানে ঈশান অবাক হয়ে বলল, ‘আমি কেন নেব স্যার? আমার কাছে দুটো মোবাইল রয়েছে।’ ঈশানের সেই মুখ দেখার মত ছিল। তাঁদের এই প্রাঙ্কের মধ্যে নিরাপত্তারক্ষীকেও সামিল করা হয়েছিল।”

ঈশান যথেষ্ট প্রতিভাবান একজন খেলোয়াড়। তাকে যদি সঠিকভাবে কাজে লাগানো হয়, তিনি ভারতের পরবর্তী প্রজন্মের মুখ উঠতে পারেন। তবে কি কারনে ঈশান এবং BCCI এর মধ্যে ঠিকঠাক তালমিল হচ্ছেনা সে ব্যাপারে এখনো কোনো কিছু প্রকাশ্যে আসেনি। আশা করা হচ্ছে খুব শীঘ্রই ঈশানের বিষয়টি নিয়ে BCCI এর কর্মকর্তারা ভাববে। সামনেই IPL 2024 এর আসর বসতে চলেছে। ইশান অবশ্যই নিজের হারানো জায়গা ফিরিয়ে আনার জন্য IPL কে টার্গেট করবে।