টেস্ট ম্যাচ শুরুর ৪৮ ঘন্টা আগেই অবসর নিলেন এই কিউই পেসার, বিশ্বের সেরাদের তালিকায় ছিল নাম

নিল ওয়াগনার ৬৪ টি টেস্ট ম্যাচে মোট ২৬০ উইকেট সংগ্রহ করেছেন যা তাকে নিউজিল্যান্ডের সর্বোচ্চ টেস্ট উইকেট শিকারীর তালিকায় পঞ্চম স্থানে রেখেছে।

ক্রিকেটের সঙ্গে দীর্ঘদিন জড়িয়ে থাকার পর একসময় প্রতিটি ক্রিকেটারকে স্বাভাবিক নিয়মে অবসর নিতে হয়। তবে এই বিচ্ছেদ ক্রিকেটারদের মনে গভীর শূন্যতা তৈরি করে‌‌। একইভাবে আজ নিউজিল্যান্ডের অভিজ্ঞ পেসার নিল ওয়াগনার (Neil Wagner) আন্তর্জাতিক টেস্ট জীবনকে বিদায় জানানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। চোখের জলে ওয়াগনারের বিদায় ভাষণ এবার ভক্তদের মনকে ভারাক্রান্ত করলো।

নিল ওয়াগনার নিউজিল্যান্ডের অন্যতম অভিজ্ঞ পেসার। তিনি দীর্ঘদিন ধরে জাতীয় দলের হয়ে নিজের অবদান রেখেছেন। ওয়াগনার ৬৪ টি টেস্ট ম্যাচে মোট ২৬০ উইকেট সংগ্রহ করেছেন যা তাকে নিউজিল্যান্ডের সর্বোচ্চ টেস্ট উইকেট শিকারীর তালিকায় পঞ্চম স্থানে রেখেছে। ২০২১ সালে বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের (WTC) ফাইনালে ভারতকে হারানোর পিছনে তিনি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছিলেন। এই ম্যাচের প্রথম ইনিংসে ওয়াগনার আজিঙ্কা রাহানের (Ajinkya Rahane) উইকেট তুলে নিয়ে চাপ সৃষ্টি করেন।

অন্যদিকে ৩৭ বছর বয়সী এই কিউই পেসার ২৯ ফেব্রুয়ারি থেকে শুরু হতে যাওয়া অস্ট্রেলিয়া (New Zealand vs Australia Match) বিরুদ্ধে দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজের আগেই এবার অবসর ঘোষণা করলেন। আসন্ন এই সিরিজ তার জীবনের শেষ আন্তর্জাতিক টেস্ট সিরিজ হতে চলেছে। তাই আজ সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে ওয়াগনার আবেগপ্রবণ হয়ে কেঁদে ফেলেন। তিনি বিদায় ভাষণ দিতে গিয়ে বলেন, “এটা আমার জন্য খুবই আবেগপ্রবণ সপ্তাহ ছিল। আপনি যাকে অনেক কিছু দিয়েছেন এবং যার থেকে অনেক কিছু পেয়েছেন তার থেকে সরে আসা সহজ নয়। তবে এখন সময় এসেছে অন্যদের এই দলটিকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার।”

তিনি আরও বলেন, “অবসর নেওয়ার সময় অনেকেই বিভ্রান্ত হন। তবে আমি ভেবেছিলাম আমার পদত্যাগ করার এটাই সঠিক সময়। নতুন ছেলেদের সুযোগ দেওয়া উচিত। তারা এসে আমরা যেভাবে এত বছর ধরে দলের সঙ্গে কাজ করেছি সেই ভাবেই দলকে আগ্রাসনের সঙ্গে এগিয়ে নিয়ে যাবে। তবে অবসর নেওয়া সহজ বিষয় নয়। এটা খুবই কষ্টদায়ক একটি পথ।” অন্যদিকে ওয়াগনার আন্তর্জাতিক টেস্ট ক্রিকেটকে বিদায় জানালেও প্রথম শ্রেণীর ক্রিকেটে তার খেলা চালিয়ে যাবেন বলে প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন।