‘আমার ভুল ছিল‌, ভাই’, সরফরাজকে রান-আউট করানোয় আফসোস করলেন জাদেজা, সবার সামনে‌ চাইলেন ক্ষমা

প্রথম দিনের খেলা শেষ হওয়ার পর সেঞ্চুরি করে ফিরে আসা রবীন্দ্র জাদেজা হঠাৎ করেই খলনায়ক হয়ে গেছেন। সোশ্যাল মিডিয়ায় রবীন্দ্র জাদেজাকে তীব্র ট্রোল করা হচ্ছে।

ধৈর্যের ফল মধুর, তা আজ প্রমান করল সরফরাজ। দীর্ঘদিন ধরেই ভারতীয় দলে জায়গা পাওয়ার স্বপ্ন দেখা সরফরাজ খান (Sarfaraz Khan) নিজের প্রথম টেস্ট ম্যাচেই হাফ সেঞ্চুরি করেন। ইংল্যান্ডের বিপক্ষে তৃতীয় টেস্টে (India vs England 3rd Test) তিনি দ্রুত সেঞ্চুরির দিকে এগিয়ে যাচ্ছিলেন, কিন্তু রবীন্দ্র জাদেজার (Ravindra Jadeja) সাথে ভুল বোঝাবুঝির কারণে নন-স্ট্রাইক প্রান্তে রান আউট হন। ভারতের ৩১১ নম্বর টেস্ট ক্রিকেটার সরফরাজ খেলেন ৬২ রানের অগ্নিগর্ভ ইনিংস।

গোটা বিশ্ব এখন সরফরাজ খানের জন্য পাগল হয়ে গেছে, তাই প্রথম দিনের খেলা শেষ হওয়ার পর সেঞ্চুরি করে ফিরে আসা রবীন্দ্র জাদেজা হঠাৎ করেই খলনায়ক হয়ে গেছেন। সোশ্যাল মিডিয়ায় রবীন্দ্র জাদেজাকে তীব্র ট্রোল করা হচ্ছে। #Selfish টুইটারে ট্রেন্ডিং হতে শুরু করে, জাদেজা পরে তার ইনস্টাগ্রাম স্টোরিতে সরফরাজ খানকে রান আউট করার জন্য ক্ষমা চেয়েছিলেন, তবে পুরো বিষয়ে সরফরাজের চিন্তাভাবনা কিছুটা আলাদা।

প্রথম দিনের খেলা শেষে ২৬ বছর বয়সী ডানহাতি ব্যাটসম্যান সরফরাজ খান সংবাদ সম্মেলনে এলে অনেক প্রশ্নের উত্তর দেন। প্রথম দিন ভারতের ৫ উইকেটে ৩২৬ রানের পর সরফরাজ সংবাদমাধ্যমকে বলেন, ”এটা খেলারই অংশ। ক্রিকেটে কমিউনিকেশন গ্যাপ আছে। কখনও রান আউট হয়, কখনও রান হয়। আমি মধ্যাহ্নভোজনের সময় জাদেজার সাথে কথা বলেছিলাম এবং খেলার সময় তাকে আমার সাথে কথা বলার জন্য অনুরোধ করেছিলাম। খেলার সময় আমার কথা বলতে ভালো লাগে। আমি ওকে বলেছিলাম, খেলার সময় আমার সঙ্গে কথা বলতে থাকতে। ব্যাটিংয়ের সময় তিনি কথা বলতে থাকেন এবং আমাকে অনেক সমর্থন করেন।”

সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্মে রবীন্দ্র জাদেজাকে গালিগালাজ করা হচ্ছিল সরফরাজ খানকে আউট করার জন্য। তবে সেখানে সাহস দেখিয়ে নিজের ভুল স্বীকার করে নেন ভারতীয় অলরাউন্ডার। ইনস্টাগ্রাম স্টোরিতে জাদেজা লেখেন, ”সরফরাজ খানের জন্য খারাপ লাগছে। এটা আমার ভুল কল ছিল। তুমি অসাধারণ খেলেছ।” এখানে উল্লেখ করা প্রয়োজন যে, ভারতীয় দলের প্রথম ইনিংসের ৮১তম ওভারের পঞ্চম বলে রবীন্দ্র জাদেজা মিড অফের দিকে খেলেন, যা সোজা চলে যায় ফিল্ডারের কাছে। প্রথমে সরফরাজকে সিঙ্গেল নেওয়ার জন্য ডেকে পরে মত বদল করেন জাদেজা। চটপটে মার্ক উড নন-স্ট্রাইকার প্রান্তে নিখুঁত থ্রো মারলে স্টাম্প ভেঙে যায়। ফলে বোলারের মুখোমুখি না হয়েই প্যাভিলিয়নে ফিরতে হয় সরফরাজ খানকে।