ক্রিকেটের আটটি এমন নিয়ম যা এখনো হয়তো অনেক ক্রিকেটপ্রেমীর অজানা

আজ এখানে ক্রিকেটের এমন ৮ টি নিয়ম নিয়ে আলোচনা করা হলো যা অনেকের কাছেই এখনও অজানা।

বিশ্ব মঞ্চে ক্রিকেট বর্তমানে বিপুল জনপ্রিয়তা লাভ করেছে। ভারতের মতো দেশে ক্রিকেট ভক্তের সংখ্যা কয়েক কোটি ছাড়িয়ে গেছে। ব্লু ব্রিগেডদের প্রাক্তন অধিনায়ক বিরাট কোহলি (Virat Kohli) ভারতীয় হিসাবে সবচেয়ে বেশি ইনস্টাগ্রামে অনুসরণ করা ব্যক্তি। অতএব যত সময় যাচ্ছে ক্রিকেট শিক্ষনীয় বিনোদন হিসাবে ধীরে ধীরে একাধিক দেশে ছড়িয়ে পড়ছে। অন্যদিকে আজ এখানে ক্রিকেটের এমন ৮ টি নিয়ম নিয়ে আলোচনা করা হলো যা অনেকের কাছেই এখনও অজানা।

১) ম্যানকাডিং নিয়ম (Mankading Rule)

কিংবদন্তি ভারতীয় ক্রিকেটার ভিনু মানকাডের (Vinoo Mankad) নামানুসারে মানকাডিং নিয়ম হল ক্রিকেটের সবচেয়ে বিতর্কিত একটা আউটের নিয়ম। এই নিয়ম অনুযায়ী বোলার বল করার আগেই যদি নন-স্ট্রাইকার ব্যাটসম্যান ক্রিজ ছেড়ে বেরিয়ে যান তাহলে বোলার বল না করে উইকেটের বেল তুলে আউট করে দিতে পারেন‌।

২) ৩ মিনিটের নিয়ম (3 Minutes Rule)

ম্যাচ চলাকালীন একজন ব্যাটসম্যান যখন আউট হন নতুন ব্যাটসম্যানকে নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে মাঠে প্রবেশ করতে হয়। ৩ মিনিটের নিয়ম অনুযায়ী নতুন ব্যাটসম্যান মাঠে প্রবেশের জন্য ৩ মিনিট সময় পাবেন। যদি সেই ব্যাটসম্যান এই সময়ের মধ্যে মাঠে প্রবেশ করতে না পারেন তাহলে বিপক্ষের আবেদনে তিনি আউট হয়ে যেতে পারেন।

৩) দ্যা ক্যাপ নিয়ম (The Cap Rule)

এই নিয়মটি ক্রিকেটারদের জামাকাপড় বা তাদের ব্যবহৃত টুপি বা চশমার সঙ্গে সংযুক্ত। যদি কোনো ক্রিকেটার ভেসে আসা বল ধরার জন্য ইচ্ছাকৃতভাবে তার জামাকাপড়ের অংশ, টুপি বা কিছু ব্যবহার করে তাহলে সেটা আউট হিসাবে ধরা হবে না। বলটি সরাসরি হাতে এসে পড়তে হবে। তবে যদি আউটের জন্য ভেসে আসা বল ধরতে গিয়ে ক্রিকেটারের কোনো জামার অংশ, টুপি, চশমা অনিচ্ছাকৃতভাবে এসে যায় তাহলে সেই বলটি সঠিকভাবে ধরা হলে আউট দেওয়া হবে।

৪) হ্যান্ডলিং দ্যা বল (Handling The Ball)

ব্যাট করার সময় ব্যাটসম্যানের ব্যাটে লেগে বল যখন উইকেটের দিকে যায় কোনো ব্যাটসম্যানের সেই বল হাত দিয়ে ধরার নিয়ম নেই। তিনি ক্রিজের মধ্যে দাঁড়িয়ে পা বা নিজের ব্যাট দিয়ে বলের দিক পরিবর্তন করতে পারেন।

৫) অবজেক্ট-হিটিং নিয়ম (Object-Hitting Rule)

ম্যাচ চলাকালীন যদি বল মাঠের মধ্যে স্টেডিয়ামের ছাদে বা স্পাইডার-ক্যাম (একধরনের বিশেষ ক্যামেরা) বা অন্য কোনো বস্তুতে আঘাত করে তাহলে সেই ডেলিভারিটি ডেড-বলে পরিণত হয়। ফলে বোলারকে অতিরিক্ত একটি বল করতে হয়।

৬) প্রয়োজনীয় আউটের আবেদন (The Necessary Appeal Rule)

ফিল্ডিং করা দলের পক্ষ থেকে আউটের আপিল না করা হলে মাঠে দাঁড়িয়ে থাকা আম্পায়াররা তাদের সিদ্ধান্ত দিতে পারেন না। ব্যাটসম্যান আউট হয়ে গেলেও আম্পায়াররা তার আঙুল তুলতে পারবেন না যদি বিপক্ষ দল আবেদন না করে।

৭) কল ব্যাক নিয়ম (Call Back)

এই নিয়মের মধ্যমে দলের অধিনায়কের অনুরোধে একজন ব্যাটসম্যান আউট হয়ে গেলেও আবার তিনি ব্যাট করতে পারেন। ম্যাচে এই ধরনের পরিস্থিতি মূলত আসে যখন ব্যাটসম্যান হঠাৎ রান নেওয়ার সময় চোট পেলে বা অনৈতিক উপায়ে তার উইকেট হারালে।

৮) দ্যা পেনাল্টি নিয়ম (The Penalty Rule)

এই নিয়মটি ব্যাটিং করা দলকে সাহায্য করে থাকে। বিপক্ষ দলের উইকেটকিপার অনেক সময় তার হেলমেটটি উইকেটের পিছনে মাটিতে রাখেন। কোনোভাবে যদি ব্যাটসম্যানের মারা বল সেই হেলমেটে গিয়ে লাগে তাহলে ব্যাটিং করা দল অতিরিক্ত পাঁচ রান পেয়ে থাকেন।