Jasprit Bumrah: বুমরার ফিটনেস সম্পর্কে বড় আপডেট, বিশ্বকাপের আগে ঘরোয়া ক্রিকেট খেলার নির্দেশ NCA-এর

ভারতীয় ফাস্ট বোলার জসপ্রীত বুমরা (Jasprit Bumrah) বর্তমানে জাতীয় ক্রিকেট একাডেমিতে (NCA) নেট অনুশীলনের সময় সাত ওভার বোলিং করেছেন, তবে চোট থেকে সেরে ওঠার পরে তিনি কখন জাতীয় দলে ফিরবেন সে সম্পর্কে এখনও কোনও উত্তর পাওয়া যায়নি। ২০২৩ বিশ্বকাপের (World Cup 2023) অপেক্ষায় থাকা ভারতীয় ভক্তরা নেটে বুমরার বোলিংকে সুসংবাদ হিসেবে দেখছেন। মঙ্গলবার মুম্বাইয়ে বিশ্বকাপের সূচি প্রকাশ করা হয়েছে।

পিঠের চোটের কারণে গত মার্চে নিউজিল্যান্ডে অস্ত্রোপচার করান জসপ্রীত বুমরা। বুমরা শেষবার ভারতের হয়ে খেলেছিলেন ২০২২ সালের সেপ্টেম্বরে, ঘরের মাঠে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি ম্যাচে। এমন পরিস্থিতিতে আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি সিরিজ নাকি এশিয়া কাপে, কখন ফিরতে পারবেন বুমরা?

“এই ধরনের চোটের জন্য একটি সময়সীমা নির্ধারণ করা বুদ্ধিমানের কাজ নয় কারণ খেলোয়াড়ের ক্রমাগত পর্যবেক্ষণ প্রয়োজন। বলা যেতে পারে বুমরা চোট থেকে সেরে উঠছেন। তিনি এনসিএ নেটে সাত ওভার বোলিং করেছেন। তিনি ক্রমাগত তার কাজের চাপ বাড়িয়ে চলেছেন, যার মধ্যে প্রাথমিক হালকা ওয়ার্কআউট থেকে বোলিংয়ের দিকে এগিয়ে যাওয়া অন্তর্ভুক্ত রয়েছে। “আগামী মাসে সে (NCA)তে কয়েকটি অনুশীলন ম্যাচ খেলবে এবং তারপরে তার ফিটনেস নিবিড়ভাবে মূল্যায়ন করা হবে।”

ভারতের সাবেক স্ট্রেন্থ অ্যান্ড কন্ডিশনিং কোচ রামজি শ্রীনিবাসন বলেছেন, “বুমরার ফেরার ক্ষেত্রে অনেক সতর্কতা অবলম্বন করা উচিত। তার তাড়াহুড়ো করা উচিত নয়। এনসিএ-তে একটি অনুশীলন ম্যাচ খেলা একটি ভাল পদক্ষেপ, কারণ এটি তাদের শরীরকে ম্যাচের চাহিদা অনুযায়ী প্রস্তুত করতে সহায়তা করবে। শীর্ষ পর্যায়ের ক্রিকেটে আসার আগে তাদের কিছু বাস্তব (ঘরোয়া) ম্যাচ খেলা উচিত।”

কেএল রাহুল (KL Rahul) এবং শ্রেয়াস আইয়ারও (Shreyas Iyer) এনসিএ-তে রিহ্যাবের মধ্য দিয়ে যাচ্ছেন। চোট থেকে সেরে ওঠার ক্ষেত্রেও ভালো অগ্রগতি করছেন এই দুই খেলোয়াড়। তাদের প্রত্যাবর্তনের জন্য নির্দিষ্ট কোনো সময়সীমা নির্ধারণ করা হয়নি। লন্ডনে রাহুলের থাইতে অস্ত্রোপচার করা হয়েছিল এবং শ্রেয়াসের পিঠের নীচের অংশে অস্ত্রোপচার করা হয়েছিল।