‘পূজারাকেই কেনো বারবার বলির পাঁঠা করা হবে’ নির্বাচকদের প্রতি ক্ষেপে উঠলেন সুনীল গাভাষ্কার

বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ ফাইনালে (WTC Final) অনেকেই তাদের প্রত্যাশার মতো পারফর্ম করতে পারেননি। তারপরেও ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিরুদ্ধে দুটি টেস্টে দলে নেওয়া হয়েছে প্রায় সকলকেই, কিন্তু চেতেশ্বর পূজারার (Cheteswar Pujara) উপর থেকে দৃষ্টি সরিয়ে নিয়েছে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড (BCCI)। এই বিষয়টিকে কেন্দ্র করে নির্বাচকদের উপর চটে গেলেন প্রাক্তন ভারতীয় কিংবদন্তী সুনীল গাভাষ্কার (Sunil Gavaskar)।

যেখানে অধিনায়ক রোহিত শর্মা (Rohit Sharma), বিরাট কোহলি (Virat Kohli), শুভমান গিলের (Shubman Gill) মতো খেলোয়াড়রা ব্যর্থ, তারপরেও তারা স্কোয়াডে নিজেদের জায়গা করেছে। তাই এমনসময়ে চেতেশ্বর পূজারাকে বাদ দেওয়ায় দৃষ্টি আকর্ষণ করেছে সকলের। তার ফিটনেসও খুব ভালো। লাল বল ক্রিকেট খেলার বহু অভিজ্ঞতা আছে, সেখানে তাকে হঠাৎ করে দল থেকে বাদ দেওয়াটা উচিত হয়নি বলে দাবী করছেন ক্রিকেট বিশেষজ্ঞরা।

গতকাল ইন্ডিয়া টুডের সাংবাদিক মাধ্যমের সাথে কথোপকথনে প্রাক্তন ভারতীয় ক্রিকেটার গাভাষ্কার জানিয়েছেন, “হ্যাঁ, পূজারা কাউন্টি ক্রিকেট খেলছে। তিনি প্রচুর লাল বল ক্রিকেট খেলেছেন, তাই তিনি জানেন এটি কি। শরীর ফিট থাকলে মানুষ ৩৯ থেকে ৪০ পর্যন্ত খেলতে পারে। এতে কোনো সন্দেহ নেই তারা সকলেই ফিট। যতক্ষণ সে রান পাচ্ছে এবং উইকেট নিচ্ছে, ততক্ষণ আমি মনে করিনা বয়স এক্স ফ্যাক্টর হওয়া উচিত।”

তিনি আরও যোগ করেছেন, “স্পষ্টভাবে শুধু একজনকেই টার্গেট করা হয়েছে। বাকিরাও তো ব্যাট হাতে ব্যর্থ হয়েছিলেন। আমার কাছে ব্যাটিংই ব্যর্থ হয়েছে। যদিও অজিঙ্কা রাহানে ছাড়া। তিনি দুই ইনিংসে ৮৯ এবং ৪৬ রান করেছেন। আর কেউ সেরকম রান পাননি।” পরক্ষণেই তিনি বলেছেন, “তাহলে পূজারাকে কেনো বাদ দেওয়া হল? আমাদের ব্যাটিং ব্যর্থতার জন্য শুধুমাত্র তাকেই কেনো বলির পাঁঠা বানানো হচ্ছে? তিনি ছিলেন ভারতীয় ক্রিকেটের সেবক, অনুগত সেবক। কারণ তার সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্মে লক্ষ লক্ষ ফলোয়ার নেই, যারা তার বাদ দেওয়া নিয়ে আওয়াজ তুলবে। তাকে বাদ দিয়ে অন্য যারা ব্যর্থ হয়েছে তাদের জায়গা হওয়ার মাপকাঠিটা ঠিক কী?”