Ravi Ashwin: পন্টিং থেকে দাদা, অশ্বিনকে না খেলানোয় ভারতীয় দলের প্রতি ক্ষোভ উগড়ে দিলেন প্রত্যেকেই

বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ ফাইনালে (WTC Final) ভারতীয় দলে জায়গা পাননি রবিচন্দ্রন অশ্বিন (Ravichandran Ashwin)। বর্তমানে বিশ্বের এক নম্বর টেস্ট বোলার হওয়া সত্ত্বেও প্রথম একাদশে সুযোগ হয়নি অশ্বিনের। আর অন্যদিকে ভারতীয় দল প্রথম দিনেই বেকায়দায় পড়ায় ভারতীয় দলের অধিনায়ক এবং কোচেদের দিকে একাধিক প্রশ্নের আঙুল উঠেছে। আঙুল তুলতে দেখা গেছে অনেক ক্রিকেট কিংবদন্তীকেও।

রবিচন্দ্রন অশ্বিনকে প্রথম একাদশে না রাখায় ক্ষুব্ধ হয়েছেন প্রাক্তন ভারতীয় ক্রিকেটার সুনীল গাভাষ্কার (Sunil Gavaskar)। তিনি ম্যাচ চলাকালীণ ধারাভাষ্য করতে গিয়ে জানান, “ভারত একটি কৌশল মিস করেছে রবিচন্দ্রন অশ্বিনকে না খেলানোয়। তিনি টেস্টে এক নম্বর র‍্যাঙ্কিংয়ের বোলার, আপনি তার মতো খেলোয়াড়দের জন্য পিচের দিকে তাকাবেন না।”

প্রাক্তন ভারতীয় অধিনায়ক সৌরভ গাঙ্গুলি (Sourav Ganguly) বলেন, “আমি অধিনায়ক হলে কখনোই অশ্বিনকে বসাতাম না। এটা পুরোটাই আফটার থটস। আমি কখনও আফটার থটসে বিশ্বাস করি না।” এবং এই সিদ্ধান্তে রুষ্ট হয়েছেন প্রাক্তন অজি অধিনায়ক রিকি পন্টিংও (Ricky Ponting)। তিনি আইসিসির একটি ইন্টারভিউতে বলেন, “এই ওভালের পিচে খেলার সাথে সাথে পিচে আরও টার্ন বাড়ে। অস্ট্রেলিয়ার ব্যাটিং লাইনআপে অনেক বাঁ-হাতি ব্যাটসম্যান রয়েছে যা রবিচন্দ্রন অশ্বিনের পছন্দের। আমি বিশ্বাস করি এটি ভারতের জন্য একটি বড় ভুল।”

ভারতের এই সিদ্ধান্তে খুশি নন প্রাক্তন অজি ওপেনার ম্যাথু হেডেনও (Matthew Hayden)। তিনি বলেন, “আমি মনে করি ভারত এই কৌশলটি মিস করেছে। প্রথম বোলিং এমন পরিস্থিতিতে রবিচন্দ্রন অশ্বিনকে দলে রাখতে হতো। তিনি এই WTC চক্রের একজন গুরুত্বপূর্ণ খেলোয়াড় এবং প্রধান উইকেট শিকারী।” প্রাক্তন ইংল্যান্ড অধিনায়ক মাইকেল ভনও (Michael Vaughan) বলেন, “পিচ যতোই সবুজ হোক না কেন, রবিচন্দ্রন অশ্বিনকে নিলে ঠিক সিদ্ধান্ত হতো ভারতের।”