World Cup Qualifiers: আরবকে হারিয়ে আবার জয় ওমানের, অন্যদিকে অসম্ভবকে সম্ভব করল স্কটল্যান্ড

আজ সমাপ্ত হল বিশ্বকাপে কোয়ালিফাই পর্বের (ICC ODI WC Qualifiers) চতুর্থ দিনের ম্যাচদুটি। আজকের প্রথম ম্যাচে মুখোমুখি হয়েছিল আয়ারল্যান্ড ও স্কটল্যান্ড এবং দ্বিতীয়ম্যাচে মুখোমুখি হয়েছিল সংযুক্ত আরব আমিরশাহী ও ওমান। প্রথমম্যাচে স্কটল্যান্ড এবং দ্বিতীয় ম্যাচে ওমান জয়লাভ করে নিজেদের জায়গাটা আরও মজবুত করেছে।

আয়ারল্যান্ড বনাম স্কটল্যান্ড (Ireland vs Scotland):

এইম্যাচে টসে জিতে প্রথমে বোলিং করার সিদ্ধান্ত নিয়েছিল স্কটল্যান্ড। এই সিদ্ধান্তের হাত ধরে নিজেদের বিশ্বকাপ সফরের প্রথম ম্যাচে শেষমেষ জয় খুঁজে নিল স্কটল্যান্ড। প্রথম থেকেই ভীষণ মুশকিলের মধ্যে দেখাচ্ছিল আয়ারল্যান্ডের ব্যাটসম্যানদের। মাত্র ৭০ রানে ৫ উইকেট হারায় আয়ারল্যান্ড। কিন্তু কুর্তিস ক্যাম্ফারের (Curtis Champher) ১২০ রান এবং জর্জ ডকরেলের (George Dockrell) ৬৯ রানের ইনিংসের সুবাদে ২৮৬ রানের পৌঁছায় আয়ারল্যান্ড। ৫ টি উইকেট নিয়ে সকলের নজর কেড়েছেন স্কটল্যান্ডের ব্রেন্ডন ম্যাকমুলেন (Brandon McMullen)।

স্কটল্যান্ডকে তাদের প্রথমম্যাচে জয়ের জন্য প্রয়োজন ছিল ২৮৭ রান। এই লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে প্রথমে স্কটল্যান্ডের ব্যাটসম্যানরা বেশ কিছুটা অসুবিধার সামনাসামনি হলেও, একদিক থেকে ম্যাচটি এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছিলেন স্কটল্যান্ডের ওপেনার ক্রিস্টোফার ম্যাকব্রিড (Christopher McBride)। ৫৬ রানের ইনিংস খেলেন তিনি। অন্যদিক থেকে আসে একের পর এক উইকেট। কিন্তু জয়ের জন্য লড়ে যাচ্ছিলেন মাইকেল লিস্ক (Michael Leask)। যখন ১৭০ রান প্রয়োজন এবং হাতে মাত্র তিন উইকেট সেইরকম পরিস্থিতিতে ৯১ রান করে শেষ বলে দলকে জয়ে পৌঁছে দেন তিনি। এই হারের সাথে সাথে বিশ্বকাপের রাস্তা আরও দুর্গম হয়ে উঠলো আয়ারল্যান্ডের পক্ষে।

সংযুক্ত আরব আমিরশাহী বনাম ওমান (UAE vs Oman):

এইম্যাচে টসে জিতে বোলিং করার সিদ্ধান্ত নেয় ওমান। প্রথমে ইউএয়িকে ব্যাট করতে পাঠিয়ে মাত্র ২২৭ রানে চেপে রাখেন ওমানের বোলাররা। অরবিন্দ (Aravind) ও আয়ন খান (Aayan Khan) ছাড়া আর কেউ তেমনভাবে দাঁড়াতে পারেননি ওমানের বোলারদের সামনে। প্রথম থেকে চাপে রাখায় ৫০ ওভার শেষে স্কোরবোর্ডে মাত্র ২২৭ রান তোলে ইউএয়ি।

ওমানকে বিশ্বকাপের যাত্রায় দ্বিতীয় ম্যাচ জিততে প্রয়োজন ছিল ২২৮ রান। যা তাড়া করতে নেমে ৪ ওভার বাকি থাকতেই ৫ উইকেটে জয়লাভ করে তারা। আকিব ইলিয়াসের (Aqib Ilyas) ৫৩ রান এবং সোয়েব খানের ( Shoaib Khan) ৫২ রানের ইনিংসের কারণে বিশ্বকাপের সফর আরও মজবুত করে ওমান। এছাড়াও মহম্মদ নাদিমের (Mohammad Nadeem) ৫০ রান এবং আয়ন খানের (Ayaan Khan) ৪১ রানও আরও সহজ করে তোলে ম্যাচটি জয়ের জন্য। এরই সাথে ২ ম্যাচে ২ টিতেই হেরে বিশ্বকাপের রাস্তা আরও জটিল করে ফেললো ইউএয়ি।