কেরালা বন্যায় হারিয়েছিলেন ঘর-পরিবার, জানুন গতকাল WPL-এ শেষ বলে ছক্কা মেরে জেতানো সজনাকে

গতকাল থেকে জাঁকজমকপূর্ণভাবে মহিলা প্রিমিয়ার লিগ (WPL) শুরু হয়ে গেল। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন একাধিক বলিউড তারকা। এই মধ্যে দিয়ে বিসিসিআই (BCCI) মহিলা ক্রিকেটকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার জন্য সব রকমভাবে প্রচেষ্টা করে যাচ্ছে। এবার গতকাল এই টুর্নামেন্টে মুম্বাইয়ের হয়ে অভিষেক করা সজীবন সাজনার (Sajeevan Sajana) কঠিন লড়াইয়ের গল্প সামনে এলো।

গতকাল মহিলা প্রিমিয়ার লিগের প্রথম ম্যাচে মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স দিল্লি ক্যাপিটালসের (Mumbai Indians vs Delhi Capitals) মুখোমুখি হয়। ম্যাচে মুম্বাই প্রথমে টসে জিতে বোলিং করা সিদ্ধান্ত নেয়। ফলে প্রথম ইনিংসে দিল্লি অ্যালিস ক্যাপসির (Alice Capsey) ৫৩ বলে ৭৫ এবং জেমিমাহ রড্রিগেজের (Jemimah Rodrigues) ২৪ বলে ৪২ রানে ভর করে ২০ ওভারে ৫ উইকেট হারিয়ে ১৭১ রান সংগ্রহ করে।

এরপর মুম্বাইয়ের হয়ে ব্যাট করতে নেমে ইয়াস্তিকা ভাটিয়া (Yastika Bhatia) এবং হারমানপ্রীত কৌর (Harmanpreet Kaur) দুরন্ত ব্যাটিং শুরু করেন। দুজনের ব্যাট থেকে যথাক্রমে ২ টি অর্ধশতরান আসে‌। ইয়াস্তিকা ৪৫ বলে ৫৭ এবং হারমানপ্রীত কৌর ৩৪ বলে ৫৫ রান করেন। তবে ম্যাচ এমন একটা পরিস্থিতিতে পৌঁছে যায় যখন মুম্বাইয়ের ১ বলে ৫ রান বাকি ছিল। সেই সময় সজীবন সাজনা মাত্র শেষ বলটি খেলার সুযোগ পান। তিনি বলটি ৬ মেরে দলের হয়ে দুর্দান্ত জয় ছিনিয়ে আনেন।

এরপর বিপক্ষের গুরুত্বপূর্ণ অভিজ্ঞ ক্রিকেটার জেমিমাহ রড্রিগেজ নিজের ইন্সটাগ্রামে সাজনার এই দুরন্ত ছয় মারার ভিডিওটি পোস্ট করে লেখেন,”ফলাফলটি আমরা যা আশা করেছিলাম তা হয়নি। তবে অভিষেক করে সাজ্জু কী অসাধারণ শেষ করলো! খুবই দরিদ্র পরিবার থেকে উঠে এসেছে। কেরালার বন্যায় ওর পরিবার প্রায় সমস্ত কিছুই হারিয়ে ফেলে। দলের যখন ১ বলে ৫ রান প্রয়োজন তখন এসে একটি অনায়াসে ছক্কা হাঁকান! এক কঠিন লড়াইয়ের গল্প তার থেকে বড়ো কথা একজন অসাধারণ ক্রিকেটারের গল্প।”

২৯ বছর বয়সী এই ক্রিকেটার কেরালার ওয়ানাদে জন্মগ্রহণ করেন। বাবা ছিলেন সামান্য রিকশা চালক। জীবনে অনেক কঠিন লড়াই করে তিনি নিজেকে ক্রিকেটার হিসেবে গড়ে তুলেছেন। সাজানা হলেন মহিলা প্রিমিয়ার লিগে খেলা কুড়িচিয়া উপজাতি থেকে উঠে আসা দ্বিতীয় ক্রিকেটার। উল্লেখ্য এই বছর মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স এই কেরালার ক্রিকেটারকে ১৫ লাখ টাকায় কিনে নেয়।