এক‌ ম্যাচে ১৩ উইকেট নিয়ে আলোড়ন এই ৩৭ বছর বয়সী স্পিনারের, ইংল্যান্ড সিরিজে সুযোগ পেলে বিপদে ফেলবেন স্টোকসদের

৩৭ বছর বয়সী অভিজ্ঞ বাঁহাতি স্পিনার সাগর উদেশি বরোদার বিপক্ষে দুই ইনিংসেই বল হাতে আলোড়ন সৃষ্টি করেন।

২০২৪ সালের রঞ্জি ট্রফিতে (Ranji Trophy 2024) এলিট গ্রুপ ডি-তে বরোদা ও পুদুচেরির মধ্যে একটি আকর্ষণীয় ম্যাচ অনুষ্ঠিত হয়েছিল। তবে বরোদা ম্যাচটি ৯৮ রানে জিতেছিল। তবে সবচেয়ে বেশি খবরের শিরোনাম হয়েছেন পুদুচেরির বাঁহাতি স্পিনার সাগর উদেশি (Sagar Udeshi)। সাগর উদেশী যে কীর্তি করেছিলেন তা সহজ ছিল না। বরোদার ব্যাটসম্যানদের কাছ থেকে ম্যাচ কেড়ে নিয়েছিলেন তিনি নিজেই। তাদের সামনে বরোদার ব্যাটসম্যানরা প্রতিনিয়ত লড়াই করছিলেন।

৩৭ বছর বয়সী অভিজ্ঞ বাঁহাতি স্পিনার সাগর উদেশি বরোদার বিপক্ষে দুই ইনিংসেই বল হাতে আলোড়ন সৃষ্টি করেন। প্রথম ইনিংসে ৩০ ওভারে ৮২ রান দিয়ে ৭ উইকেট নেন সাগর। দ্বিতীয় ইনিংসে ২৪.৫ ওভারে ৭০ রান দিয়ে ৬ উইকেট নেন তিনি। দুই ইনিংসেই দলের অর্ধেকের বেশি সদস্য সাগর উদেশী একাই আউট হন। তবে তা সত্ত্বেও দলকে জেতাতে পারেননি তিনি। তবে পুরো ম্যাচে ১৩ উইকেট নেওয়ার পর অবশ্যই তিনি ভারতীয় নির্বাচকদের দৃষ্টি আকর্ষণ করেছেন।

এটা অস্বীকার করার উপায় নেই যে রবিচন্দ্রন অশ্বিন (Ravichandran Ashwin) এবং রবীন্দ্র জাদেজার (Ravindra Jadeja) মতো ভারতীয় স্পিনাররা ধারাবাহিকভাবে টেস্টে ভাল করছে এবং দলের জয়ে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করছে। তবে দলে জায়গা পাওয়ার জন্য যত বেশি প্রতিযোগিতা হবে, ততই ভালো। এমন পরিস্থিতিতে বাঁহাতি স্পিনার হিসেবে সাগর উদেশিও রবীন্দ্র জাদেজাসহ অক্ষর প্যাটেলের (Axar Patel) জন্য মাথাব্যথার কারণ হয়ে উঠতে পারে। সাগর যদি এভাবে পারফর্ম করতে থাকে, তাহলে নির্বাচকরা অবশ্যই তাকে ভারতীয় টেস্ট দলে অন্তর্ভুক্ত করতে পারেন। ভারতের মাটিতে সহজেই বড় নায়কদের দাঁড় করানোর ক্ষমতা রয়েছে সাগরের। এখন শুধু বিলম্ব, একটা সুযোগের।