টানা দুই ম্যাচে শূন্যতে আউট হওয়ার পরেও ইতিহাস রচনার দোরগোড়ায় রোহিত, পূরণ হতে পারে পরের ম্যাচেই

রোহিত শর্মা এই মুহূর্তে বিশ্বের অন্যতম সফল অধিনায়ক। গত বছর একদিনের বিশ্বকাপের ফাইনালে অস্ট্রেলিয়ার কাছে হারলেও তিনি গোটা টুর্নামেন্ট জুড়ে দক্ষতার সঙ্গে ব্লু ব্রিগেডদের নেতৃত্ব দিয়েছিলেন। অন্যদিকে দীর্ঘদিন পর রোহিত শর্মা (Rohit Sharma) আবার আফগানিস্তানের বিপক্ষে ভারতীয় টি-টোয়েন্টি দলকে নেতৃত্ব দিচ্ছেন। এবার তিনি অধিনায়ক হিসাবে মহেন্দ্র সিং ধোনির রেকর্ডের স্পর্শের পাশাপাশি বিশ্ব টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে ইতিহাস তৈরি করতে চলেছেন।

২০২২ সালের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে ভারতীয় দলের বিপক্ষে ইংল্যান্ড ১০ উইকেটে জয় তুলে নেয়। তারপর থেকে রোহিত শর্মার বদলে টি-টোয়েন্টি সিরিজগুলিতে হার্দিক পান্ডিয়াকে নেতৃত্ব দিতে দেখা গিয়েছিলো। তবে হার্দিকের চোটের কারণে ২০২৪ টি টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আগে রোহিত শর্মাকে টি টোয়েন্টি ফরম্যাটে অধিনায়ক হিসাবে ফিরিয়ে আনা হয়েছে। এর সঙ্গেই আফগানিস্তানের বিপক্ষে ৩ ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজের প্রথম দুই ম্যাচেই তার নেতৃত্বে ব্লু ব্রিগেডরা দুরন্ত জয় তুলে নিয়েছে।

ব্যাট হাতে রোহিত শর্মা ব্যর্থ হলেও শিবম দুবে (Shivam Dube), যশস্বী জয়সওয়ালের (Yashasvi Jaiswal) মতো তরুণ ক্রিকেটাররা এই সিরিজে দুরন্ত পারফরম্যান্স করে দলকে ভরসা দিচ্ছেন। এর সঙ্গেই রোহিত শর্মা ১৭ জানুয়ারি অর্থাৎ বুধবার আফগানিস্তানের বিপক্ষে সিরিজের শেষ ম্যাচে জয় পেলে বিশ্ব টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে ইতিহাস গড়বেন। উল্লেখ্য ধোনি অধিনায়ক হিসাবে ভারতীয় দলকে নেতৃত্ব দিয়ে সর্বোচ্চ ৭২ টি টি-টোয়েন্টি ম্যাচের মধ্যে ৪১ টি টি ম্যাচে জয় এনে দিয়েছেন। অন্যদিকে অধিনায়ক হিসাবে রোহিত শর্মা এখনও পর্যন্ত দেশের হয়ে ৫৩ ম্যাচে ৪১ ম্যাচে জয় এনে দিয়ে ধোনির রেকর্ড স্পর্শ করেন। এটাই ভারতীয় অধিনায়ক হিসাবে যুগ্মভাবে সবচেয়ে বেশি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ জয়।

এছাড়াও রোহিত শর্মার‌ কাছে অধিনায়ক হিসাবে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে সবচেয়ে বেশি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ জয় করার সুযোগ আছে। উল্লেখ্য গতকাল যদি তিনি আফগানিস্তানের বিপক্ষে জয় পান তাহলে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে টি-টোয়েন্টি ফরম্যাটে সবচেয়ে বেশি অধিনায়ক হিসাবে ম্যাচ জয় করবেন। তিনি ইংল্যান্ডের ইয়ন মরগান (Eoin Morgan), পাকিস্তানের বাবর আজম (Babar Azam), আফগানিস্তানের আসগর আফগান এবং উগান্ডার ব্রায়ান মাসাবারের সঙ্গে একই তালিকায় চলে আসবেন। তারা এখনও পর্যন্ত অধিনায়ক হিসাবে ৪২ টি করে আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টি ম্যাচ জিতেছেন।