লম্বা উড়ান মুশিরেরও, অপ্রতিরোধ্য ডবলসেঞ্চুরিতে কোয়ার্টার-ফাইনালে মুম্বাইয়ের মান বাঁচালেন সরফরাজের ভাই

রঞ্জি ট্রফির গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে বরোদার বিপক্ষে মুম্বাই এক সময় ১২৪ বলে ৫ উইকেট হারিয়ে ফেলে চাপে পড়ে যায়।

ক্রিকেটের স্বপ্নকে দীর্ঘদিন ধরে লালন-পালন করে দুই ভাই সরফরাজ খান (Sarfaraz Khan) এবং মুশির খান (Musheer Khan) বড়ো হয়ে উঠেছেন। সাম্প্রতিক সময় ইংল্যান্ডের বিপক্ষে তৃতীয় টেস্ট ম্যাচে ভারতের হয়ে অভিষেক করে সরফরাজ সকলের মনে জায়গা করে নিয়েছেন। এবার রঞ্জি ট্রফির (Ranji Trophy) গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে মুশির খান মনমুগ্ধকর ইনিংস খেলে মুম্বাইকে উদ্ধার করে আনলেন।

গতকাল থেকে এই বছর রঞ্জি ট্রফির গুরুত্বপূর্ণ কোয়ার্টার ফাইনালে মুম্বাই এবং বারোদা (Mumbai vs Baroda Match) মুখোমুখি হয়েছে। ম্যাচের প্রথমে টসে জিতে মুম্বাই ব্যাটিং করার সিদ্ধান্ত নেয়। তবে বিপক্ষদের বোলিং আক্রমণের সামনে তারা একের পর এক উইকেট হারাতে থাকে। অভিজ্ঞ ওপেনার পৃথ্বী শ্ব (Prithvi Shaw) ৪৬ বলে ৬ টি চারের মাধ্যমে ৩৩ রান করে মাঠের বাইরে চলে যান। অন্যদিকে অধিনায়ক আজিঙ্কা রাহানের (Ajinkya Rahane) ব্যাট থেকেও মাত্র ১৩ বলে ৩ রান আসে।

এর ফলে মুম্বাই এক সময় ১২৪ বলে ৫ উইকেট হারিয়ে ফেলে চাপে পড়ে যায়। এরপর ১৮ বছর বয়সী মুশির খান ব্যাট করতে নেমে দলের হয়ে একাই হাল ধরেন। তিনি এক প্রান্ত ধরে রেখে দ্রুত স্কোরবোর্ড এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করেন। এই সঙ্গেই গতকাল মুশির ১৮১ বলে দুরন্ত শতরান করেছিলেন। এটাই তার প্রথম শ্রেণীর ক্রিকেটে প্রথম শতরান ছিল। এরপর আজ এই তরুণ ব্যাটসম্যান মুম্বাইয়ের হয়ে নিজের ইনিংসটি আরও এগিয়ে নিয়ে যান।

এর ফলে মুশির খান ৩৫৭ বলে ২০৩ রানের অপরাজিত অসাধারণ ইনিংস খেলেন। এই ইনিংসে তার ব্যাট থেকে ১৮ টি দুরন্ত চার আসে। এই রানে ভর করে মুম্বাই প্রথম ইনিংসে ১৪০.৪ ওভারে ১০ উইকেট হারিয়ে ৩৮৪ রান সংগ্রহ করেছে। উল্লেখ্য বর্তমানে মুম্বাইয়ের গুরুত্বপূর্ণ ক্রিকেটার শিবম দুবে (Shivam Dube) এবং শ্রেয়াস আইয়ার (Shreyas Iyer) চোটের কারণে দলের বাইরে থাকায় এবং দাদা সরফরাজ খান জাতীয় দলে ব্যস্ত থাকায় ১৮ বছর বয়সী মুশির মুম্বাইয়ের হয়ে এই ম্যাচে সুযোগ পেয়েছেন।