টি-২০ বিশ্বকাপের জন্য এই ভারতীয় লেজেন্ডকে কোচ করল উদীয়মান দেশ, ২০০৭-এ ভারতকে জিতিয়েছিলেন ট্রফী

১৯৮৫ সালে ভারতের হয়ে ৬টি আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলেছিলেন রাজপুত। অবসর গ্রহণের পরে তিনি কোচিং শুরু করেছিলেন এবং ভারতের অন্যতম সফল কোচ হয়েছিলেন।

সংযুক্ত আরব আমিরাত পুরুষ জাতীয় দলের (UAE Men’s Cricket Team) প্রধান কোচ হিসেবে তিন বছরের জন্য নিয়োগ পেয়েছেন ভারতের সাবেক ক্রিকেটার লালচাঁদ রাজপুত (Lalchand Rajput)। অন্তর্বর্তীকালীন প্রধান কোচ মুদাসসর নজরের জায়গা নিলেন সাবেক এই ক্রিকেটার, যাকে এখন ভবিষ্যতের তারকাদের প্রস্তুত করার জন্য জাতীয় ক্রিকেট একাডেমির প্রধান করা হয়েছে। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের পরিপ্রেক্ষিতে এটি একটি বড় পদক্ষেপ বলে মনে করা হচ্ছে। লালচাঁদ রাজপুতের কোচিংয়েই টিম ইন্ডিয়া ২০০৭ সালের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের (T20 World Cup) শিরোপা জিতেছিল। সেই সময় দলের অধিনায়ক ছিলেন মহেন্দ্র সিং ধোনি।

১৯৮৫ সালে ভারতের হয়ে ৬টি আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলেছিলেন রাজপুত। অবসর গ্রহণের পরে তিনি কোচিং শুরু করেছিলেন এবং ভারতের অন্যতম সফল কোচ হয়েছিলেন। এর আগে ২০১৬-১৭ মরসুমে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কাউন্সিল কর্তৃক টেস্ট স্ট্যাটাস পাওয়ার পর আফগানিস্তানের কোচের দায়িত্ব পালন করেন রাজপুত। তিনি ২০১৮ থেকে ২০২২ সাল পর্যন্ত জিম্বাবুয়ে পুরুষ ক্রিকেট দলের সাথেও কাজ করেছিলেন, তাদের অস্ট্রেলিয়ায় ২০২২ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের জন্য যোগ্যতা অর্জনে সহায়তা করেছিলেন।

লালচাঁদ রাজপুত এজন্য আমিরশাহি ক্রিকেট বোর্ডকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন। “এই উত্তেজনাপূর্ণ ভূমিকার জন্য আমাকে নিয়োগ দেওয়ার জন্য আমি আমিরাত ক্রিকেট বোর্ডকে ধন্যবাদ জানাতে চাই। সংযুক্ত আরব আমিরাত সাম্প্রতিক বছরগুলিতে অন্যতম শক্তিশালী সহযোগী সদস্য হিসাবে আবির্ভূত হয়েছে। খেলোয়াড়রা ওয়ানডে এবং টি-টোয়েন্টি উভয় ক্ষেত্রেই কিছু ভাল করেছে। বর্তমান দলে দারুণ সব খেলোয়াড় আছে। আমি তাদের সঙ্গে কাজ করতে এবং তাদের ক্রিকেটীয় দক্ষতা আরও বাড়ানোর জন্য মুখিয়ে আছি।

আমি আত্মবিশ্বাসী যে দুবাইয়ের চমৎকার সিস্টেমের অভিজ্ঞতা তরুণ ছেলেদের ক্রিকেটে এগিয়ে রাখবে। সংযুক্ত আরব আমিরাত ক্রিকেটের ভবিষ্যত খুব উজ্জ্বল এবং আমি দলের ধারাবাহিকভাবে পারফর্ম করার লক্ষ্য রাখি। লালচাঁদ রাজপুত আইসিসি ক্রিকেট বিশ্বকাপ লিগ-২ এর ত্রিদেশীয় সিরিজে সংযুক্ত আরব আমিরাত ক্রিকেট দলের সাথে তার নতুন দায়িত্ব শুরু করবেন, যার মধ্যে স্কটল্যান্ড এবং কানাডাও রয়েছে। ২৮ ফেব্রুয়ারি, বুধবার থেকে শুরু হচ্ছে ত্রিদেশীয় সিরিজ। আগামী মাসে স্কটল্যান্ডের বিপক্ষে তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলবে সংযুক্ত আরব আমিরাত।