WTC ফাইনালের প্রথম একাদশে কেএস ভরত নাকি নতুন ইশান কিষান, কে সুযোগ পাবে? জানুন

এক সপ্তাহেরও কম সময়ের মধ্যে শুরু হতে যাচ্ছে আইসিসি বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের (WTC Final)। আগামী ৭ জুন থেকে ওভালের মাঠে অস্ট্রেলিয়ার চ্যালেঞ্জের মুখোমুখি হবে টিম ইন্ডিয়া। এই ফাইনালের আগে প্রথম একাদশ নিয়ে বড় ধরনের উত্তেজনা রয়েছে টিম ইন্ডিয়ার সামনে। দলের ব্যাটিং ও বোলিং অর্ডার নির্ধারিত। তবে প্রথম একাদশে উইকেটরক্ষক কে নিয়ে এখনও বড় প্রশ্ন রয়েছে। রোহিত শর্মার দলে ইশান কিষাণ (Ishan Kishan) ও কেএস ভরতের (KS Bharat) মতো দুটি বিকল্প রয়েছে।

কেএস ভারত ২০২৩ সালের আইপিএলে গুজরাট টাইটান্সের অংশ ছিল। একটি ম্যাচেও খেলার সুযোগ পাননি তিনি। মাত্র এক ম্যাচে সাহার চোটের কারণে বদলি হিসেবে কিপিং করতে নেমেছিলেন তিনি। কিন্তু একবারও ব্যাট করেননি তিনি। চলতি বছর অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে টেস্ট অভিষেক হয় তার। সেখানে নিজের ব্যাটিং দিয়েও ছাপ ফেলতে পারেননি তিনি। তবে তার কিপিং ভালো ছিল।

উইকেটরক্ষক হিসেবে টিম ইন্ডিয়ার কাছে দ্বিতীয় বিকল্প রয়েছে ইশান কিষাণের। চোটপাওয়া কেএল রাহুলের জায়গায় তাকে দলে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছিল। ঈশান এখনও টেস্ট অভিষেক করেননি। অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে সিরিজেও দলের সঙ্গে ছিলেন তিনি। তবে আইপিএল ২০২৩-এ মুম্বাইয়ের সবকটি ম্যাচেই প্রথম একাদশের অংশ ছিলেন ঈশান। ১৫ ম্যাচে ব্যাট হাতে ৩০.২৭ গড়ে এবং ১৪২.৭৬ স্ট্রাইক রেটে ৪৫৪ রান করেছেন তিনি।

ঋষভ পন্থ চোটের পরেই টেস্ট প্লেয়িং একাদশে উইকেটরক্ষকের পদ খালি ছিল। ম্যাচ প্র্যাকটিসের দিকে তাকালে ইশানের জায়গা তৈরি হয়েছে দলে। সেই সঙ্গে তিনি একজন বাঁহাতি ব্যাটসম্যান। দলের টপ অর্ডারে একজনও বাঁহাতি ব্যাটসম্যান নেই। ইশান কিষাণের সেক্ষেত্রে সুযোগ পাওয়ার দিক থেকে কিছুটা এগিয়ে আছেন। তিনি পান্তের মতো বোলারদের আক্রমণও করতে পারেন। সেই সঙ্গে টিম ম্যানেজমেন্ট যদি শুধু উইকেটরক্ষককেই অগ্রাধিকার দেয়, তাহলে ভরতের নির্বাচন নিশ্চিত।