একসময় বলেছিলেন নিজের যোগ্যতায় টেস্টে ফিরবেন, এবার ওয়েস্ট ইন্ডিজ টেস্টে ডাক পেতে চলেছেন হার্দিক

বহুদিন ধরেই ভারতীয় টেস্ট দলের সাথে কোনোভাবেই যুক্ত নেই হার্দিক পান্ডিয়া (Hardik Pandya)। লিমিটেড ওভার ক্রিকেটে ভারতীয় দলের হয়ে অধিনায়কত্ব করতে দেখা গেলেও, গত পাঁচ বছরে টেস্ট ফরম্যাটে ঘুরে দেখা হয়নি হার্দিক পান্ডিয়ার। লাল বল ক্রিকেটের উপর থেকে অনেকটাই ভরসা হারিয়ে ফেলেছেন হার্দিক। এবার হার্দিককে লাল বল ক্রিকেটে ফেরাতে মরিয়া হয়ে পড়লেন প্রাক্তন বিসিসিআই প্রেসিডেন্ট সৌরভ গাঙ্গুলি (Sourav Ganguly)।

ইতিমধ্যেই দুটি বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ ফাইনাল (WTC Final) অতিবাহিত হয়ে গেছে, দুইবারই ফাইনালে হারের মুখ দেখতে হয়েছে ভারতকে। দুইবারই আশাহত হয়েছেন ভারতীয় ক্রিকেটপ্রেমীরা। এরই মাঝে বুধবার প্রাক্তন ভারতীয় দলের অধিনায়ক সৌরভ গাঙ্গুলি ভারতীয় টেস্ট দলে হার্দিককে ফেরানোর কথা তুলে বসেন।

সৌরভ গাঙ্গুলি বলেছেন, “ভারতে বহু প্রতিভা রয়েছে। ঘরোয়া ক্রিকেটেও দুর্দান্ত ক্রিকেটাররাও রয়েছে। তারা রীতিমতো রানও করছে। কখন তাদেরকে সুযোগ দেওয়া হবে, সেটা স্থির করতে হবে নিজেদেরই। যশস্বী জয়সওয়াল, রজত পতিদারের মতো ক্রিকেটারও রয়েছে, বাংলার হয়ে অনেক রান করা অভিমন্যু ঈশ্বরণও রয়েছে। শুভমন গিল, রুতুরাজ গায়কওয়াডের মতো তরুণ ক্রিকেটাররা ভারতীয় দলের সঙ্গে রয়েছে। আশা করি হার্দিক এই কথাগুলি শুনছে। আমি দেখতে চাই হার্দিক টেস্ট ক্রিকেট খেলছে।”

সূত্রের খবর অনুযায়ী নির্বাচকরা হার্দিককে টেস্ট ক্রিকেটে ফিরিয়ে আনতে চায়। সে ব্যাপারে তারা হার্দিকের সাথে বসে আলোচনা করবে। একজন বিসিসিআই কর্মকর্তা বলেন- ” “হার্দিক অবশ্যই একটি বিকল্প, কিন্তু হার্দিককে নিজেই সেটা বলতে হবে যে সে টেস্টে ফিরতে চায় কিনা। নির্বাচকরা তাকে লাল বলে দেখতে ইচ্ছুক। কিন্তু তিনি কি তিন ফরম্যাটেই খেলার মতো অবস্থায় আছেন? বিশেষ করে যখন তিনি ওয়ানডে ফরম্যাটের একটি গুরুত্বপূর্ণ প্লেয়ার। এটাই হার্দিককে সিদ্ধান্ত নিতে হবে।”

কিছুদিন আগে আইপিএল চলাকালীন টেস্ট ক্রিকেটের ব্যাপারে কিছু কথা বলতে শোনা যায় হার্দিককে। তাকে প্রশ্ন করা হয়েছিল, আপনি কি WTC ফাইনাল খেলতে প্রস্তুত! তার উত্তরে তিনি বলেছেন, “না, আমি কখনোই কারোর জায়গা নিয়ে খেলতে পছন্দ করি না। তবে আমি অবশ্যই কামব্যাক করবো। নিজের যোগ্যতায় আমি টেস্ট ক্রিকেটে কামব্যাক করব।”

চলতি বছরে ওয়ানডে বিশ্বকাপের (ODI World Cup) কথা মনে করিয়ে হার্দিককে বলতে শোনা গেছে, “এই মুহূর্তে আমি সাদা বল ক্রিকেটের উপর নজর দিচ্ছি। সীমিত ওভার ক্রিকেট খেলার পর আমার শরীর যদি আবার সাথ দেয়, তাহলে অবশ্যই টেস্ট ম্যাচ খেলব।”

২০১৮ সালে ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে শেষবার টেস্ট ম্যাচ খেলেছিলেন হার্দিক পান্ডিয়া। যার মধ্যে রয়েছে চারটি অর্ধশতরান এবং একটি শতরান। বলহাতেও ১৭ টি উইকেটও রয়েছে এই ডান-হাতি অলরাউন্ডারের কাছে।