‘অনুষ্কাকে মাঠে ঢুকতে দেওয়া না হোক’ WTC Final-এ ভারতের হারে অনুষ্কা শর্মাকে দায়ী করছে ভক্তরা

আজ বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ ফাইনালে (WTC Final) নির্ণায়ক দিনে প্রথম সিজনেই অলআউট হয় আরো একবার আইসিসি ট্রফি খোয়ালো ভারতীয় দল। শেষবার ২০১৩ সালে ধোনির অধিনায়কত্বে ভারত কোনো ট্রফি জিতেছিল। তারপর থেকে বছরের পর বছর অধিনায়ক বদলালেও সেমিফাইনাল ফাইনালে প্রতিবারই ভারতকে হারের মুখ দেখতে হয়েছে।

আজকের দিনের শুরুতে রাহানে এবং বিরাট কোহলি (Virat Kohli) ক্রিজে থাকাকালীন যথেষ্ট ভালো জায়গায় ছিল ভারত। জয়ের রাস্তা কঠিন হলেও আশাবাদী ছিল ভারতীয় দল এবং ভক্তরা। কিন্তু স্কট বোলান্ডের (Scott Boland) একই ওভারে প্রথমে কোহলি এবং পরে রবীন্দ্র জাদেজা (Ravindra Jadeja) আউট হলে নিমেষের মধ্যে স্বপ্ন ভঙ্গ হতে দেখা যায় ভারতের। কিন্তু তখনও ক্রিজে টিকে ছিলেন রাহানে। তবে তারপরেই শুরু হয় দুর্যোগ।

একের পর এক উইকেটের পতন হতে থাকে। শেষমেষ মাত্র ২৩৪ রানে অলআউট হয়ে যায় ভারত। ২০৯ রানে বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ জিতে নেয় অস্ট্রেলিয়া। তবে এই হারের পর দলের প্লেয়ারদের নয়, ভক্তরা বিরাট কোহলি স্ত্রী অনুষ্কা শর্মাকে (Anushka Sharma) টার্গেট করে তাদের ক্ষোভ উগরে দিতে থাকেন। কেউ কেউ বলেন অনুষ্কা শর্মাকে স্ক্রিনে দেখানোর পরের বলেই বিরাট কোহলি আউট হয়ে যান। তাই এর জন্য দায়ী অনুষ্কা। আবার কেউ বলেন অনুষ্কা শর্মা যখন স্টেডিয়ামে উপস্থিত থাকেন ভারত ও বিরাট কোহলি কখনোই ভালো খেলতে পারেনা।

কেউ কেউ তো সব মাত্রা অতিক্রম করে অনুষ্কা শর্মাকে স্টেডিয়ামে আসা থেকে ব্যান করার দাবি অবধি করে। তারা বলে অনুষ্কা যখনই কোন ফাইনাল বা সেমিফাইনালে উপস্থিত থাকে ভারত সেই ম্যাচ হেরে যায়। যদিও দিনশেষে দলের খারাপ পারফরমেন্সের কারণেই ফলাফলে প্রভাব পড়ে, কোন বাহ্যিক কারণে নয়। বছরের পর বছর ভারতের বোলিং পারফরম্যান্স ঠিকঠাক থাকলেও আইসিসি ট্রফির ফাইনাল ও সেমিফাইনালে খারাপ ব্যাটিং ভারতের নৌকা ডুবিয়েছে বলছেন আকাশ চোপড়া সহ অনেক ক্রিকেট বিশেষজ্ঞ।