টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আগে চিন্তায় ICC, ট্রাভিস হেডের পর আরো দুই অজি প্লেয়ার‌ আক্রান্ত হলেন কোভিডে

আগামীকাল অর্থাৎ ২৫ জানুয়ারি থেকে ওয়েস্ট ইন্ডিজ বনাম অস্ট্রেলিয়ার দ্বিতীয় টেস্ট ম্যাচের আগে প্রথমে তারকা ব্যাটসম্যান ট্রেভিস হেড করোনায় আক্রান্ত হয়ে পড়েছিলেন।

বর্তমানে করোনা আতঙ্ক ক্রিকেট বিশ্বে রীতিমতো ছড়িয়ে পড়ছে। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের (T20 World Cup 2024) আগে একের পর এক ক্রিকেটার কোভিড-১৯ পজেটিভ হওয়ায় চিন্তার ভাঁজ ক্রিকেট মহলে। সম্প্রতি অস্ট্রেলিয়া বনাম ওয়েস্ট ইন্ডিজের (Australia vs West Indies match) শেষ টেস্ট ম্যাচের আগে ট্রেভিস হেডের (Travis Head) কোভিড-১৯ ধরা পড়ে। এবার করোনায় আক্রান্ত হলেন অজি তারকা অলরাউন্ডার ক্যামেরন গ্রিন (Cameron Green)।

এই মাসে নিউজিল্যান্ড বনাম পাকিস্তানের মধ্যে হওয়া ৫ ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজে প্রথম কোভিড-১৯ এর আতঙ্ক তৈরি হয়। এই সিরিজ চলাকালীন কিউই তারকা মিচেল স্যান্টনার (Mitchell Santner) কোভিডে আক্রান্ত হন। তারপর ওপেনার ডেভন কনওয়ের (Devon Conway) কোভিড পজিটিভ ধরা পড়ে। এই ঘটনা ক্রিকেট মহলে রীতিমতো চাঞ্চল্য তৈরি করেছিলো। এবার অস্ট্রেলিয়া বনাম ওয়েস্ট ইন্ডিজের টেস্ট ম্যাচেও কোরনা প্রভাব ফেলছে।

আগামীকাল অর্থাৎ ২৫ জানুয়ারি থেকে ওয়েস্ট ইন্ডিজ বনাম অস্ট্রেলিয়ার দ্বিতীয় টেস্ট ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে। তার আগেই অস্ট্রেলিয়ার তারকা ব্যাটসম্যান ট্রেভিস হেড (Travis Head) করোনায় আক্রান্ত হয়ে পড়েন। এবার দলের প্রধান কোচ অ্যান্ড্রু ম্যাকডোনাল্ড (Andrew McDonald) এবং অলরাউন্ডার ক্যামেরন গ্রিনের কোভিড পজিটিভ ধরা পড়েছে। ফলে গতকাল একাদশে এই ক্রিকেটার জায়গা নাও পেতে পারেন। এই বিষয়ে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার একটি বিবৃতি সামনে এসেছে।

বিবৃতিটিতে বলা হয়েছে, “ক্যামেরন গ্রিন এবং অ্যান্ড্রু ম্যাকডোনাল্ডকে দল থেকে বিচ্ছিন্ন করা হবে যতক্ষণ না তারা কোভিড নেগেটিভ হয়ে ফিরে আসছেন। এটি গ্রিনকে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার প্রোটোকলের সাথে সঙ্গতি রেখে ম্যাচে অংশ নিতে বা ম্যাকডোনাল্ডের অংশগ্রহণে বাধা দেবে না।” অন্যদিকে বর্তমানে ট্রেভিস হেড অনেকটাই সুস্থ হয়ে উঠছেন। তিনি গতকাল দলের সঙ্গে যোগ দেবেন বলে মনে করা হচ্ছে।