Ashes: ভাঙলো বাজবলের দম্ভ, রুদ্ধশ্বাস ম্যাচে ইংল্যান্ডকে তাদেরই ঘরে হারালো কামিন্সের অস্ট্রেলিয়া

অ্যাশেজ সিরিজের (The Ashes Series) প্রথম ম্যাচেই রোমহর্ষক জয়। পঞ্চম দিনের শুরুতে বৃষ্টি হওয়ায় বেশ ভালোই সুবিধা পান ইংল্যান্ডের বোলাররা। তবে তার উত্তর দেওয়ার জন্য তৈরী ছিলেন অজি লোয়ার অর্ডার ব্যাটসম্যানেরা। খুব সহজে জয় না পেলেও, শেষপর্যন্ত টিকে খেলে অস্ট্রেলিয়াকে জয় এনে দিলেন অজি অধিনায়ক প্যাট কামিন্স (Pat Cummins) এবং ন্যাথান লায়ন (Nathan Lyon)। যেখানে কেউই ভাবতে পারেনি, সেই পরিস্থিতি থেকে প্রথম ম্যাচ নিজেদের নাম করলো অজিরা।

প্রথম দিনেই ডিক্লেয়ার দিয়ে নিজেদের কিছুটা অহংবোধের পরিচয় দিয়েছিল ইংল্যান্ড। বাজবলের উপর আস্থা রেখে ৩৯৩ রানে ডিক্লেয়ার করেছিল বেন স্টোকসরা৷ কিন্তু কোনো অংশে পিছুপা হয়নি অস্ট্রেলিয়াও, তার জবাবে ৩৮৬ রান স্কোরবোর্ডে তোলে তারা। প্রথম ইনিংসে ইংল্যান্ড বড় রানে পৌঁছালেও, দ্বিতীয় ইনিংসে ২৭৩ রানে সমস্ত উইকেট হারায় তারা।

দ্বিতীয় ইনিংসের শেষে অস্ট্রেলিয়ার সামনে ২৮১ রানে জয়ের লক্ষ্যমাত্রা রেখেছিল ইংল্যান্ড। শুরুতে স্কোরবোর্ডের দিকে তাকালে মনে হয়েছিল খুব সহজেই এই ম্যাচে জয়লাভ করতে অজিরা। শুরুটা অস্ট্রেলিয়ার পক্ষে হলেও, এইরানে কামব্যাক করেছিলেন ইংল্যান্ডের বোলাররা। অজিরা অনায়াসে ম্যাচ জিতবে মনে হলেও, গল্প কিছু অন্যরকম ছিল এই ম্যাচে। উসমান খাওয়াজা (Usman Khawaja) এবং ক্যামেরণ গ্রিন (Cameron Green) মিডিলে কিছুটা ভরসা দেখালেও, শেষপর্যন্ত তারা আউট হওয়ায় ফের চাপ পড়ে অস্ট্রেলিয়া শিবিরে। প্রথম ইনিংসে ১৪১ রানের পাশাপাশি এই ইনিংসেও ৬৫ রান করেন উসমান খাওয়াজা।

অ্যালেক্স ক্যারি (Alex Carey) বেশ কিছুক্ষণ ক্রিজে লড়াই চালালেও, রানের চাপ আসতে তিনিও নিজের উইকেট ছুড়ে দিয়ে আসেন। এমন সময় দাঁড়িয়ে অস্ট্রেলিয়ার জয়ের জন্য প্রয়োজন ছিল ৫৪ রান, হাতে ছিল ২ উইকেট। স্টেডিয়াম জুড়ে তখন চলছিল ইংল্যান্ড ইংল্যান্ড জয়ধ্বনি। সেখান থেকে প্যাট কামিন্স ও ন্যাথান লায়ন জুটির সহযোগিতায় প্রথম ম্যাচে জয় নিজেদের নখদর্পণে করে অজিরা। এই জয়ের সাথে সাথে ১-০ তে সিরিজে এগিয়ে থাকলো অস্ট্রেলিয়া।

স্কোরকার্ড:

ইংল্যান্ড: ৩৯৩/৮ ডি (৭৮ ওভার) প্রথম ইনিংস

অস্ট্রেলিয়া: ৩৮৬ (১১৬.১ ওভার) প্রথম ইনিংস

ইংল্যান্ড: ২৭৩ (৬৬.২ ওভার) দ্বিতীয় ইনিংস

অস্ট্রেলিয়া: ২৮২/৮ (৯২.৩ ওভার) দ্বিতীয় ইনিংস