তিনজন এমন প্লেয়ার যারা CSK-এর ব্যাটিং অর্ডারে আম্বাতি রায়ডুর জায়গা নিতে পারেন

২০২৩ আইপিএলের ফাইনালে গুজরাট টাইটান্সকে (GT) হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন হয়েছে চেন্নাই সুপার কিংস (CSK)। তবে ফাইনালের আগেই দলের দীর্ঘদিনের অভিজ্ঞ ব্যাটসম্যান আম্বাতি রায়ডু (Ambati Rayudu) এই বছরের আইপিএল তার শেষ আইপিএল হতে চলেছে বলে ঘোষণা করেন। রায়ডু ২০১৮ সাল থেকে চেন্নাই সুপার কিংসের হয়ে একাধিক গুরুত্বপূর্ণ ইনিংস খেলেছেন। এরকম গুরুত্বপূর্ণ ব্যাটসম্যানের অবসরের পরে চেন্নাই দলে জায়গা পেতে পারেন এইরকম তিন সম্ভাব্য ভারতীয় ব্যাটসম্যান নিয়ে থাকলো বিস্তারিত।

১) শাইক রাশিদ (Shaik Rasheed): ২০২২ সালের অনূর্ধ্ব ১৯ বিশ্বকাপে ভারতীয় দলের গুরুত্বপূর্ণ সদস্য ছিলেন শাইক রাশিদ। সেই বছর ভারতকে অনূর্ধ্ব বিশ্বকাপে চ্যাম্পিয়ন করার পিছনে তিনি অন্যতম ভূমিকা পালন করেন। রাশিদ চারটি ম্যাচে দুটি অর্ধশতরানের সঙ্গে করেছিলেন ২০১ রান। তার ভালো পারফরমেন্সের জন্য চেন্নাই সুপার কিংস তাকে ২০ লক্ষ টাকা দিয়ে দলে নেয়।‌ তবে এখনো পর্যন্ত তিনি চেন্নাইয়ের হয়ে একটাও ম্যাচ‌ খেলেননি। তাই আম্বতি রায়ডুর জায়গায় শাইক রাশিদ চেন্নাইয়ের হয়ে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করতে পারেন।

২) নিশান্ত সিন্ধু (Nishant Sindhu): হরিয়ানার ঘরোয়া ক্রিকেটে নিশান্ত সিন্ধু ধারাবাহিক পারফরম্যান্স করে আসছেন। ২০২২ সালে অনূর্ধ্ব ১৯ ক্রিকেটে ভারতীয় দলের হয়ে এই ব্যাটসম্যানও গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেন। ফাইনালে ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে তিনি একটি অর্ধশতরানের দুরন্ত ইনিংস খেলেন। এইবছর চেন্নাই সুপার কিংস নিশান্ত সিন্ধুকে ৬০ লক্ষ টাকা দিয়ে দলে নেয়। তবে এই আইপিএলে চেন্নাইয়ের একাদশে তিনি জায়গা পাননি। নিশান্ত রায়ডুর মত মিডিল অর্ডার ব্যাটসম্যান। তাই ২০২৪ আইপিএলে চেন্নাইয়ের হয়ে মিডিল অর্ডারে তিনি শক্তি জোগাতে পারেন।

৩) শুভ্রাংশু সেনাপতি (Shubhranshu Senapati): শুভ্রাংশু দীর্ঘদিন ওড়িশার হয়ে ঘরোয়া ক্রিকেটে ভালো পারফরম্যান্স করে আসছেন। অভিজ্ঞতার দিক থেকে ঘরোয়া ক্রিকেটে তিনি অনেকটা এগিয়ে আছেন। ২০২২ নিলামে চেন্নাই সুপার কিংস তাকে ২০ লক্ষ টাকায় দলে নেয়। তবে তিনি আইপিএলে এখনো পর্যন্ত চেন্নাই সুপার কিংসের হয়ে অভিষেক করেননি। ২৬ বছর বয়সী এই ব্যাটসম্যান ঘরোয়া টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে ৩২ টি ম্যাচ খেলে করেছেন ৮১৭ রান। রায়ডুর জায়গাটি খালি হয়ে যাওয়ায় চেন্নাই দলে আসতে পারেন শুভ্রাংশু সেনাপতি।